Web Hosting এবং Domain কি? কিভাবে ও কোথায় তাদের ব্যবহার হয় তা কি জানেন?

বরাবরে মত এবারো আপনাদের জন্যে কিছু নতুন তথ্য নিয়ে এসেছি। আর আজ যা নিয়ে কথা বলব তা সম্পর্কে প্রত্যে্ক ডিজিটাল মার্কেটার এর ধারণা থাকা অতীব জরুরী। ডিজিটাল মার্কেটিং এর যুগে ওয়েবসাইট না থাকলেই নয়। আর  নিজস্ব ওয়েবসাইট থাকতে হলে Web hosting ও domain তো থাকা লাগবেই। কিন্তু বেশির ভাগ মানুষের  Web hosting ও domain সম্পর্কে ধারণা নেই। আর এর সম্পর্কে জানাটা কেনো জরুরী? কারন এগুলো ছাড়া আপনি ওয়েবসাইট- ই খুলতে পারবেন না। তাহলে চলুন এই সম্পর্কে আপনাদের ধারণা দেয়ার চেষ্টা করি।

Web Hosting কি?

Website এর ডাটা সংরক্ষনের কাজ করে Web Hosting। যেখানে আপনি আপনার ওয়েবসাইটটি সংরক্ষন করতে পারবেন।

মনে করেন এটা আপনার ঘর যেখানে আপনি আপনার সব সরঞ্জাম সংরক্ষন করতে পারবেন, কিন্তু তা আপনার কাপড়-চোপড় হবে না, তা হবে ওয়েব হোস্ট এ কম্পিউটারের ফাইল (যেমনঃ HTML, documents, images, videos ইত্যাদি ) সমূহ।   

 “Web Hosting” বলতে প্রধানত বোঝায় একটি কোম্পানি , যারা তাদের কম্পিউটার বা সার্ভার ভাড়া দেয় যেন আমরা আমাদের ওয়েবসাইট স্টোর করতে পারি এবং তারা ইন্টারনেট সংযোগ এর সুবিধা দেয় যাতে অন্যরা আ্মাদের তথ্য ব্যবহার করতে পারে।

বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এইসব Hosting কোম্পানিগুলো Server maintenance এর কাজ গুলো করে থাকে যেমনঃ Backup, Root configuration, Maintenance, Disaster recoveries এবং আরো অনেক কিছু।

Web Hosting কিভাবে কাজ করে?

সাধারণত Web Hosting company ওয়েবসাইট স্টোর করার থেকেও বেশি কিছু করে থাকে।

নিচে কিছু মুল্যবান সেবা ও বৈশিষ্ট্য  উল্লেখ করা হলো যেগুলো আপনি হোস্টিং প্রোভাইডারদের থেকে আশা করবেনঃ

  • Domain registration –  Domain এ registration করলে আপনি একি প্রভাইডার থেকে Domain এবং Hosting কিনতে পারবেন এবং পরিচালনাও করতে পারবেন।
  • Website builder – এখানে Drag-and-drop করার জন্য ওয়েব ইডিটিং টুলস থাকে, যার মাধ্যমে সহজে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।
  • Email hosting – এটি মুলত email@yourdomain.com থেকে ই-মেইল দেয়ার এবং ইমেইল পাওয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়।
  • বেসিক হার্ডওয়্যার (server setup) এবং সফটওয়্যার সাপোর্ট (CMS, server OS, etc) পাওয়া যায়।

বিভিন্ন ধরনের Web Hosting

আমরা চারটি ভিন্ন ধরনের হোস্টিং সার্ভার দেখে থাকিঃ Virtual Private Server (VPS), Shared, Dedicated, and Cloud Hosting.

যখন সব গুলো সার্ভার আপনার ওয়েবসাইট এর জন্যে শক্তিশালী স্টোরেজ সেন্টার হিসেবে কাজ করে তখন তাদের স্টোরেজ সামর্থ্য, সার্ভার এর গতি, টেকনিক্যাল তথ্যের প্রয়োজনীয়তা এবং বিশ্বাসযোগ্যতা দিক থেকে তাদের ভিন্নতা দেখা যায়।

নিচে আমি আপনাদের Shared, VPS, dedicated, and cloud hosting এর মধ্যে পার্থক্য দেখাবো।

Shared Hosting

মুলত Shared hosting এর মধ্যে একটি ওয়েবসাইট কে অন্তর্ভুক্ত করা হয় যেখানে অন্য ওয়েবসাইট গুলোও বিদ্যমান রয়েছে।

এর মানে হচ্ছে শেয়ারড হোস্টিং এ কয়েকটি থেকে কয়েকশো এবং কয়েক হাজার ওয়েবসাইট এর ডোমেইন একটি সাধারন জায়গা (যেমনঃ RAM এবং CPU) থেকে সার্ভার এর সম্পদ ব্যবহার করে থাকে।  

যেহেতু খরচ অনেক কম, বেশির ভাগ ওয়েবসাইট যাদের মডারেট ট্রাফিক রয়েছে, তারা মানসম্মত সফটওয়্যার রান করতে পারে এই সার্ভারে।  

  • অসুবিধা- এখানে কোনো Root access নেই, বেশি ট্রাফিক সামলানোর ক্ষেত্রে সীমিতভাবে সক্ষম অথবা অকেজো, একই সার্ভার এ site performance অন্যান্য সাইট এর কারনে প্রভাবিত হতে পারে।
  • কত খরচ করতে হয়- ১০$ এর বেশি প্রয়োজন নেই সাইনআপ করার জন্যে।
  • কোথায় shared hosting সার্ভিস পাবেন- Hostinger, InMotion Hosting, A2 Hosting

Virtual Private Server (VPS) Hosting:

Virtual private server hosting, সার্ভার কে ভারচুয়াল সার্ভার এ ভাগ করে, যেখানে প্রত্যেক ওয়েবসাইট তাদের ডেডিকেটেড সার্ভার কে হোস্ট করে।

কিন্তু এখানে তারা আসলে কিছু ভিন্ন ইউজারদের সাথে তাদের সার্ভার শেয়ার করে থাকে।

নিজস্ব Virtual space এ ইউজাররা রুট access ব্যবহারের সুবিধা পেয়ে থাকে এবং তার সাথে secured hosting এর পরিবেশ ও পেয়ে থাকে।

  • অসুবিধা –অল্প পরিমানে বেশি ট্রাফিক সামলানোর ক্ষমতা রয়েছে। এখানেও একই সার্ভার এ Site performance এর জন্য অন্যান্য সাইটগুলো প্রভাবিত হতে পারে।
  • কত খরচ হয়- $20 – $60/mo; এছাড়া যাদের এক্সট্রা সার্ভার কাস্টোমাইজেশন অথবা special software এর প্রয়োজন পরে, তাদের অতিরিক্ত কিছু খরচ করতে হয় । 
  • কোথায় পাবেন VPS hosting services-  Interserver, SiteGround, InMotion Hosting

Dedicated Server Hosting:

একটি dedicated server আপনাকে সর্বাধিক নিয়ন্ত্রণ এর ক্ষমতা দিবে web server এর ওপর, যেখানে আপনার ওয়েবসাইটটি সংরক্ষিত রয়েছে।

আপনি আপনার ওয়েবসাইট এর  জন্যে একটি সমগ্র সার্ভার ভাড়া করতে পারেন, যেখানে শুধু আপনার ওয়েবসাইটটি সংরক্ষিত থাকবে।

  • অসুবিধা – যত বেশি ক্ষমতা তত বেশি খরচ।  Dedicated server গুলো অনেক বেশি ব্যয়বহুল হয়ে থাকে এবং এগুলো তাদের জন্যেই যারা সর্বাধিক ব্যবহার এবং ভালো সার্ভার পারফরম্যান্স চায়।  
  • কত খরচ হয়- $80/mo এবং এর চেয়ে বেশি; এগুলোর প্রাইস নির্ভর করে সুবিধার উপর। যে যত অতিরিক্ত সেবা নেয় তার খরচ তত বেশি হবে।
  • কোথায় পাবেন Dedicated hosting services- InMotion Hosting, TMD Hosting, AltusHost

Cloud Hosting

অতিরিক্ত  ট্রাফিক সামলানোর জন্যে Cloud Hosting আমাদের যথেষ্ট ক্ষমতা দেয়, সার্ভার গুলোর একটি টিম একসাথে কাজ করে অনেক গুলো ওয়েবসাইট কে হোস্ট করার জন্যে।

এটি অনেক গুলো কম্পিউটার কে অনুমতি দেয় একসাথে কাজ করার জন্যে যেন নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট এর বেশি ট্রাফিক সামলানো যায়।

  • অসুবিধা- বেশিরভাগ Cloud hosting setup root access এর সুবিধা দেয় না, কারন (এতে কিছু সার্ভার সেটিংস পরিবর্তন করা লাগে এবং কিছু সফটওয়্যার ইন্সটল করা লাগে) এর জন্যে প্রয়োজন বেশি খরচ।
  • কত খরচ হয়- $30 এবং এর উপরে।
  • কোথায় পাবেন Cloud hosting services:  Hostgator, Cloudways, Digital Ocean

 

 Domain Name কি?

Domain হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইট এর একটি Address। ওয়েবসাইট সেটআপ করার আগে আপনার অবশ্যই একটি ডোমেইন Address লাগবে।

আপনার নিজস্ব Domain দরকার? তাহলে আপনার একজন ডোমেইন রেজিস্ট্রারারকে দিয়ে আপনার কাঙ্ক্ষিত ডোমেইনটি রেজিস্টার করানো লাগবে।

Domain name এমন কিছু না যেটা ধরা বা ছোঁয়া যায়। এটা হচ্ছে একটি String of Characters যেটা আপনার ওয়েবসাইট কে পরিচয় দেয়( a name, like human and businesses)।

যেমন Domain name এর উদাহরন দিতে গেলে: Google.com, Alexa.com, Linux.org, eLearningEuropa.info, এবং Yahoo.co.uk. এমন আরো অনেক রয়েছে।

সব Domain name গুলো অনন্য হয়ে থাকে। এর মানে হচ্ছে পৃথিবীতে কেবল একটি alexa.com রয়েছে।

আপনি কখনই সেই নাম রেজিস্টার করতে পারবেন না যেটা অন্য আরেকজন রেজিস্টার করে ফেলেছে (governed by ICANN)।

যেমনঃ  Name Cheap দিয়ে আপনি সার্চ ও ডোমেইন নাম রেজিস্টার করতে পারবেন।  

কারা Top Level Domains (TLDs)?

Domain Name System (DNS) এ্র নামের মধ্যেও আবার র‍্যাঙ্কিং এর ব্যাপার রয়েছে। Top Level Domains (TLDs) এর র‍্যাঙ্ক এ একদল generic নাম রয়েছে। 

যেমন– COM, NET, ORG, EDU, INFO, BIZ, CO.UK, ইত্যাদি।  

উদাহরণ #১-

Googole.com, Linux.org, yahoo.co.uk

খেয়াল করলে দেখতে পাবেন এই ডোমেইন নাম গুলোর শেষে ভিন্ন কিছু এক্সটেনশন রয়েছে (.com,.org, .co.uk.)। আর এই গুলোই TLDs হিসেবে পরিচিত।  

এই সব top-level domains যেগুলো সরকারী ভাবে লিপিবদ্ধ করা এগুলো Root Zone Database এ Internet Assigned Numbers Authority (IANA)  দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। ২০১৮ সাল অনুযায়ী মোট ১৫৩২ টি TLDs রয়েছে।

কিছু TLDs যা আমরা সাধারণত দেখে থাকি

BIZ, BR, CA, CN, CO.JP, COM.SG, EDU, ES, INFO, FR, MOBI, TECH, RU, UK, US.

যেগুলো কম পরিচিত

AF, AX, BAR, BUSINESS, BID, EXPERT, GURU, JOBS, ESTATE, WIEN, WOW, XYZ.

কিভাবে Domain Name Registration এর কাজ করতে হয়?

  1. একটি ভালো নাম নির্বাচন করতে হবে নিজস্ব ওয়েবসাইট এর জন্যে।
  2. একটি Domain name অবশ্যই ইউনিক হতে হবে। কিছু ভিন্নতা রাখুন যদি আপনার নির্বাচিত নামটি ইতিমধ্যে কেউ ব্যবহার করে থাকে।
  3. একজন ভালো রেজিস্ট্রারার খুঁজুন, আপনার ওয়েবসাইট রেজিস্টার করার জন্যে।
  4. রেজিস্ট্রেশন এর ফি দিন, $১০ – $৩৫ হতে পারে যা নির্ভর করে TLD এর উপরে (সাধারনত PayPal or credit card ব্যবহা করুন)।
  5. আপনার রেজিস্ট্রেশনের কাজ এখন সমাপ্ত।
  6. এরপর আপনার ওয়েব হোস্টিং এ আপনাকে আপনার domain name পয়েন্ট করতে হবে। (DNS record পরিবর্তন করে)।

Domain Privacy

Domain privacy হচ্ছে একটি সেবা যা সাধারণত ডোমেইন রেজিট্রারাররা দিয়ে থাকে। আর এটা দিয়ে থাকে যেনো তাদের কাস্টমাররা তাদের নিজস্ব এবং ব্যবসার তথ্য সংরক্ষিত করতে পারে।

এর ফলে, আপনার নিজস্ব তথ্য যেমন আপনার ঠিকানা, ই-মেইল, টেলিফন নাম্বার, ইত্যাদি পাবলিক এর থেকে আড়াল রাখতে পারবেন।

Domain privacy খুবই দরকারী কারন আপনার domain record (যেমনঃ the WhoIs data)  এমন ভাবেও ব্যবহার হতে পারে যা আপনার জন্যে মোটেও ভালো না।

কিছু অসাধু কোম্পানি আপনার ডোমেইন এক্সপায়ার হয়ে গেছে এই বলে আপনার ডোমেইন ঠিকানা ও তথ্য নিয়ে আপনাকে বিপদে ফেলতে পারে।

Domain Name vs Web Hosting

এদের মধ্যে কি পার্থক্য রয়েছে?

সহজে বললে: একটি Domain name হচ্ছে আপনার বাসার ঠিকানার মতো। আরেক দিক দিয়ে web hosting হচ্ছে আপনার বাসা যেখানে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় জিনিপত্র রেখে থাকেন।

ওয়েব হোস্টিং এর নামকরনের জন্যে রাস্তার নামের পরিবর্তে এলাকার কোড, শব্দের সেট অথবা নাম্বার ব্যবহার করা হয়।

ফার্নিচার এর বদলে কম্পিউটারের হার্ড ডিস্ক এবং মেমোরি ব্যবহার করা হয় ডাটা ফাইল গুলো সংরক্ষনের জন্যে।

কেনো ভেবাচেকায় পরেন?

এই প্লাটফর্মে যারা নতুন তারা প্রায়ই কনফিউজড হয়ে যায় কারন এখানে একই প্রভাইডার domain registration এবং web hosting সেবা দিয়ে থাকে।

গতানুগতিক ভাবে ডোমেইন রেজিস্ট্রারার রা ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করে থাকে কিন্তু এখন তারা ওয়েব হোস্টিং এর সেবাও দিচ্ছে।

তেমনি বিভিন্ন web hosting কোম্পানি গুলো ডোমেইন নামগুলো রেজিস্ট্রেশন এর সুবিধাও দিচ্ছে। মাঝে মাঝে তো তারা ফ্রি ডোমেইন নাম দিচ্ছে যেনো তারা নতুন নতুন কাস্টমার পেতে পারে।

যেমনঃ InMotionHosting এবং GreenGeeks ফ্রি domains দিয়ে থাকে তাদের কাস্টমারদেরকে।

একই কোম্পানির থেকে domain এবং web hosting কেনা উচিত হবে কি?

কখনই আপনার গুরুত্বপূর্ণ ডোমেইনটি আপনার ওয়েব হোস্ট এর সাথে রেজিস্টার করবেন না। 

সাধারণত আমি আমার ডোমেইন এবং ওয়েব হোস্টিং ভিন্ন কোম্পানির থেকে করে থাকি।

এটা করাতে আমি নিশ্চিত থাকি, আমরা ডোমেইন নিয়ে যাতে আমার হোস্টিং প্রোভাইডার ভুল কিছু না করতে পারে। 

আপনি যখন আপনার ডোমেইনটা কোন তৃতীয় পক্ষ থেকে রেজিস্টার করাবেন তখন আপনার নতুন ওয়েব হোস্টার কোম্পানিতে যাওয়া সহজ হবে।

কারন যখন আপনি আপনার বর্তমান ওয়েব হোস্টিং কোম্পানিকে ছাড়তে চাবেন তখন তারা আর আপনার ডোমেইন কে আটকে রাখতে পারবেনা। কারন তারা চাবেনা যে তাদের কাস্টমার হাত ছাড়া হোক।  

কিন্তু সবাই এইদিক দিয়ে একমত নয়। কারন আপনি যদি একটি ভালো প্রোভাইডার এর থেকে দুটিই রেজিস্ট্রেশন করান যারা কিনা সুখ্যাতি-সম্পন্ন তাহলে আপনার জন্যে তা এত চিন্তার বিষয় নয়।

কি করবেন যদি আপনি ইতিমধ্যে একই কোম্পানির থেকে domain hosting রেজিস্টার করে ফেলেছেন?

তাহলে আপনার কাছে দুটি উপায় আছেঃ

  1. এভাবেই চলুন যেভাবে চলছেন, নাহয় 
  2. আপনার domain name টি তৃতীয় রেজিস্ট্রারার এর কাছে স্থানান্তর করুন। মুলত আপনাকে যা করতে হবে
  3. বর্তমান রেজিস্টার এর কাছ থেকে Auth/EPP code নিন 
  4. transfer request সাবমিট করুন নতুন domain registrar এর কাছে।

মনে রাখবেন  ICANN’s Transfer of Registrations Policy অনুযায়ী, যেসব Domains এর বয়স ৬০ দিনের কম অথবা ৬০ দিন আগে সরানো হচ্ছে অন্য জায়গায় তারা এই প্রসেস ব্যবহার করতে পারবে না।

এর জন্যে আপনাকে ৬০ দিন শেষ হওয়ার অপেক্ষা করা লাগবে যেনো আপনি ট্রান্সফার করতে পারেন। 

Web Hosting এবং Domain Name সাধারন কিছু প্রশ্নের উত্তরঃ

  • ওয়েব হোস্ট কি?

ওয়েব হোস্ট হচ্ছে কম্পিউটার স্টোর যেখানে আপনি আপনার সব কিছু রাখতে পারবেন।

  • কিভাবে আপনি একটি ভালো হোস্টিং প্ল্যান করবেন?

Server uptime, Hosting upgrade options, Pricing, Backup features, Control panels, এবং Environmental friendliness এইসব বৈশিষ্ট্য দেখে আপনি আপনার ওয়েব হোস্ট বেছে নিতে পারেন। বাছাই করার আগে আপনার এই জানতে হবে যে আপনার ওয়েবসাইট এর কি প্রয়োজন।

  • ওয়েব হোস্টিং কি?  

ওয়েব হোস্টিং হচ্ছে কোম্পানি যারা আপনাকে সার্ভার বা কম্পিউটার স্টোরেজ ভাড়া দিয়ে থাকে।

  • GoDaddy কি ওয়েব হোস্ট?

GoDaddy হচ্ছে ওয়েব সার্ভিস প্রোভাইডার। এটা ওয়েব হোস্টিং এর চেয়েও বেশি সুবিধা দিয়ে থাকে এবং  Domain name সার্ভিসও দিয়ে থাকে। আর তার সাথে Web security, Email hosting, Web applications এবং আরো অনেক কিছু।

  • WordPress কি ওয়েব হোস্ট?

WordPress হচ্ছে কন্টেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। যেকনো ওয়েব হোস্টিং সার্ভিস প্রোভাইডার এর কাছে আপনি WordPress-based web hosting পেয়ে থাকবেন।

এইত এই ছিল Domain এবং Hosting সম্পর্কিত কিছু তথ্য। আশা করি আপনাদের ধারণা কিছুটা পরিষ্কার হবে এখান থেকে। তাহলে আমরা বলতে পারি যে ওয়েবসাইট এর জন্যে domain এবং Hosting উভয়ই প্রয়োজন রয়েছে।

আর আপনাদের যদি আরো কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে আমাদের জানাবেন। আমরা তার উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব। আর ডোমেইন এবং হোস্টিং কেনার আগে অবশ্যই সব কিছু জেনে শুনে নিবেন যাতে পরে বিপদে না পরতে হয়।

Tags: ,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *